পরীমনির মুক্তির দাবীতে দ্বিতীয় দিনের মতো নাগরিক সমাবেশ

0
74

বর্তমানে দেশে আলোচিত ইস্যু চিত্রনায়িকা পরীমণি। তার মুক্তির দাবিতে এর আগে তিন দফায় প্রেস ক্লাব ও শাহবাগ চত্বর হয়েছে নাগরিক সমাবেশ। এই নায়িকার মুক্তির দাবিতে চতুর্থ দফায় রবিবার (২২ আগস্ট) শাহবাগ চত্বর হয়েছে।

রোববার (২২ আগস্ট) শাহবাগে অবস্থিত বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ‘জাস্টিস ফর পরীমণি’ ব্যানারে সমাবেশ করেন ‘বিক্ষুব্ধ নাগরিকজন’ নামের একটি সংগঠন। তাদের দাবি একটাই, পরীমণির মুক্তি চাই। উপস্থিত সবাই চিত্রনায়িকা পরীমণির ন্যায়বিচার চেয়েছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দেশের চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন নাটকের নির্মাতা ও অভিনয়শিল্পীদের একটি অংশ। তারা বারবার পরীমণির রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করার নিন্দা জানিয়েছেন। অভিনয়শিল্পী, পরিচালক ও বিভিন্ন পেশার মানুষ এদিন সমাবেশে অংশ নেন।

এ সময় প্রযোজক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব বলেন, ‘পরীমণির সাথে অন্যায় হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী পরীমণি আপনাকে মা ডেকেছেন। আপনি তার প্রতি সদয় হবেন।’

নির্মাতা অপারজিতা সংগীতা বলেন, ‘শুরু থেকেই পরীমণির সাথে অন্যায় হচ্ছে। তার নিদিষ্ট অপরাধের প্রমাণ এখনও জানা যায়নি। প্রতি মুহূর্তে পরীমণি সাইবার বুলিংয়ের শিকার হচ্ছেন। এ জন্য কোনো ধরনের ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন। পরীমণি ক্ষমতাশীল ব্যক্তিদের আক্রোশের শিকার।’

রাশিদ পলাশ বলেন, ‘পরীমণির এ সময় শুটিংয়ে থাকার কথা ছিল কিন্তু সে আজ কারাগারে। মানুষ ভুল ত্রুটির উদ্ধে নয়। তাকে সন্ত্রাসী কায়দায় আদালতে আনা হচ্ছে। যা অনেক বড় সন্ত্রাসীর বেলায়ও ঘটে না। সে কোনো সন্ত্রাসী নয়। তাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে। সময় মতে শুটিং করতে না পরায় আমাদের অনেক ক্ষতি হয় গেছে। পরীমণি একজন শিল্পী তাকে মুক্তি দেয়া হোক।’

পরীমণির মুক্তির দাবিতে সিনেমা শিল্পী-নাট্য শিল্পী- সঙ্গীত শিল্পী-লেখক সাংবাদিক শিক্ষক ছাত্র যুবদের এ নাগরিক সমাবেশে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়েছেন মানবাধিকার আন্দোলন নেত্রী ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, খ্যাতিমান লেখক সংগঠক ও একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির। মানবাধিকার আন্দোলন নেত্রী খুশি কবির। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সাদেকা হালিম।

পরীমণির সাথে আইনজীবী কথা বলতে না দেয়া মানবাধিকার লঙ্গন হয়েছে বলে সমাবেশে উপস্থিত বক্তরা অভিযোগ করেন। এ সময় মানবাধিকার রক্ষার অনুরোধ জানান তারা।

এদিকে, রাজধানীর বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় চিত্রনায়িকা পরীমণির জামিন চেয়ে আবেদন করেছেন তার আইনজীবী। জামিন বিষয়ে শুনানির জন্য ১৩ সেপ্টেম্বর ধার্য করেছেন আদালত।

রোববার (২২ আগস্ট) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে এই অভিনেত্রীর জামিন আবেদন করেন আইনজীবী মজিবুর রহমান।

এর আগে, শনিবার (২১ আগস্ট) পরীমণিকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। এসময় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক গোলাম মোস্তফা তাকে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আশেক ইমাম তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর তাকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট প্রায় চার ঘণ্টার অভিযান শেষে বনানীর বাসা থেকে পরীমণি ও তার সহযোগী দীপুকে আটক করে র‌্যাব। এ সময় তার বাসা থেকে মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়। পরদিন ৫ আগস্ট বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য আইনে পরীমণি ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে বনানী থানায় মামলা করে র‌্যাব-১।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here